Domain And Hosting টা আসলে কি আজকে আমরা জানার চেষ্টা করবো 



Domain  টা তেমন জটিল বিষয় না চলুন একটা ছোট্ট উদাহরন দিয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছিঃ-


ধরে নিন আপনি একজন মানুষ আর আপনার একটি নাম রয়েছে তাই নয় কি? 
যখন কেউ আপনার নির্ধারিত নাম ধরে ডাক দেয় তখন আপনি সাড়া দিয়ে থাকেন।

এবার ধরে নিন আপনার নাম জুম্মন কসাই এখন আপনাকে যদি কেউ সখিনা ভানু বলে ডাক দেয়, 
আপনি কি সাড়া দিবেন?

আমার তো মনে হয় না আপনি সাড়া দিবেন কারন সেটা আপনার নয় বরং অন্য কারো নাম। 

আবার দেখুন ঠিক একই ভাবে আবার আমাদের বংশের টাইটেল আছে তাই না যেটা কিনা নামের সাথে যুক্ত হয়ে আরেকটু ভিন্ন কিছু তৈরী করে হতে পারে সেটাঃ-

"চৌধুরী সাহেব আপনার মেয়েকে ভুলে যাওয়ার বদলে মিল , বাংলো এবং টাকার অফার টা কি এখনো চালু আছে"
উপরে চৌধুরী  হলো বংশ ঠিক তেমনি তা হতে পারে সেটা ভিন্ন।




ঠিক তেমনি আমাদের একটা ওয়েবসাইট যদি তৈরী করি আমাদের একটা এড্রেস বা নাম অবশ্যই দরকার হবে যে নাম দিয়ে ভিজিট করলে আমাদের নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাবে।

আর সেই ওয়েবসাইটে ভিজিট করার জন্য যে নাম বা এড্রেস এর দরকার হয় সেটাই সহজ কথায় ডোমেইন। 

Domain এর আবার কিছু বংশ আছে চৌধুরীর মত হতে পারে সেটা .Com / .Net /.Org /.Xyz / .Me / .Info / .CC / .Ml / .ICU / .Etc এত রকমের এক্সটেনশন আছে সব গুলো আসলে মনে রাখাও হয়তো সম্ভব না তবে চাইলে নেট ঘেটে কিছু আইডিয়া তো আপনি অবশ্যই নিতে পারেন। 

.Com ডোমেইন টা কে বেশী ভ্যালু দেওয়া হয় বা সব জায়গায় ব্যবহার করা হয় কমার্শিয়াল বলে কথা । তাই ডট কম ডোমেইন ব্যবহার করাটাই বেটার তবে আপনি চাইলে অন্য গুলোও ব্যবহার করতে পারেন, কারন কন্টেন্ট ইজ কিং।

আশা করি Domain সম্পর্কে একটা ব্যসিক ধারনা দিতে পেরেছি আপনাদের। এবার চলুন হোস্টিং সম্পর্কে আরেকটা গল্প শুনে নেওয়া যাক।

Hosting:-

Hosting টা কি তা বলার আগে চলুন ছোট্ট একটা উদাহরন দিয়ে নেই আপনাকে। 

"আপনার আশা করি একটা মোবাইল আছে কিংবা কম্পিউটার। যদি থেকে থাকে আপনি নিশ্চই সেখানে অনেক দরকারী ডকুমেন্ট ছাড়াও অনেক ধরনের ফাইল জমা রাখেন হতে পারে সেটা ভিডিও, মিউজিক কিংবা অন্যান্য কিছু।
এবার এই ফাইল গুলো কোথায় জমা থাকে আপনার ডিভাইসের স্টোরেজ বা মেমোরী কার্ডে। এখন আপনার ডিভাইসে যদি মেমোরি না থাকে তাহলে আপনি কিছুই জমা রাখতে পারছেন না।। 

ঠিক তেমনি Hosting টা হলো এমন একটা সার্ভিস যেখানে আমরা আমাদের সাইট কিংবা এপ প্রজেক্ট অথবা গেমস,  ডাটাবেস ইত্যাদি জাতীয় জিনিস গুলো জমা রাখতে পারি। 

তাহলে মূল কথা হলো এটাই যে আমাদের অনলাইনে নিজেদের ওয়েবসাইট যেখানে জমা রাখি সেটাই হলো Hosting. 
তবে এই সার্ভিস গুলো পেইড হয়ে থাকে তবে কিছু ফ্রি হোস্টিং কোম্পানীও রয়েছে। 

আমি জানিনা আপনাদের সঠিক সংজ্ঞা দিতে পেরেছি কিনা বাট আশা করি Domain And Hosting সম্পর্কে চলার মত একটা ধারনা দিতে পেরেছি যদি নতুন হয়ে থাকেন। 


আজকে আমরা ডোমেইন এবং হোস্টিং সম্পর্কে আলোচনা করছি এই কারনে যদি আমরা অনলাইনে আমাদের নিজেদের একটি প্রতিষ্ঠান কিংবা কোন ব্যবসা দাড় করাতে চাইলে কিংবা প্যাসিভ আয়ের মাধ্যম তৈরি করতে চাইলে এটা গুরুত্ব অনেক তাই এটা সম্পর্কে আইডিয়া না থাকলে বরং বিপদেই পড়বেন ।

তাহলে দেখা হচ্ছে আগামী পর্বে কিছু সিক্রেট ট্রিক নিয়ে । 











Leave a Comment